সংগৃহীত

বাংলাম্যাপ ডেস্কঃ সোমবার দুপুরে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে ২৪ মে এবং হলগুলো তার এক সপ্তাহ আগে ১৭ মে খুলে দেয়া হবে। সেই সাথে তিনি জানান, বিসিএস পরীক্ষা পেছানোর কথাও। তবে ৪০,৪১,৪২তম  বিসিএস পরীক্ষা ঘোষিত সময়েই অনুষ্ঠিত হবে বলে পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান জানিয়েছেন।

পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন জানান, এসকল পরীক্ষার সময় পরিবর্তন করা হবে না। প্রয়োজন হলে ৪৩তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা পেছানো হবে।

৪০,৪১,৪২তম  বিসিএস পরীক্ষার সময় অনেক আগেই নির্ধারণ করা হয়েছে। 

৪০তম বিসিএস-এর মৌখিক পরীক্ষা ১৬ ফেব্রুয়ারি থেকে চলছে। আগামী  ২৬ ফেব্রুয়ারি  ৪২তম  বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ও  ১৯ মার্চ ৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে ঘোষণা করেছে সরকারি কর্ম কমিশন।

কিন্তু গতকাল দীপু মনি বলেছিলেন, “আমাদের শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনেকেই বিসিএস পরীক্ষার জন্য আবেদন করেছেন বা বিসিএস পরীক্ষার জন্য অপেক্ষা করছেন।

“বিসিএস পরীক্ষার আবেদন ও পরীক্ষার তারিখ পিছিয়ে দেওয়া হবে। বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়ার তারিখের সাথে সামঞ্জস্য রেখে নতুন তারিখ ঘোষণা করা হবে।”

তবে শিক্ষামন্ত্রীর বিসিএস পরীক্ষা পেছানোর কথায় বিসিএস প্রত্যাশীরা অনেকটা দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভুগতে থাকেন।

পরে পিএসসি চেয়ারম্যান জানালেন, নির্ধারিত সময়েই বিসিএস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।