সংগৃহীত

বাংলাম্যাপ ডেস্কঃ ‘সরকার সনদসর্বস্ব, পরীক্ষা নির্ভর ও নিরানন্দ শিক্ষাব্যবস্থার পরিবর্তনে কাজ করছে এবং মূল্যায়ন পদ্ধতি পরিবর্তনের বিষয়ে ভাবছে। জিপিএ-৫ পাওয়া মেধা যাচাইয়ের একমাত্র পদ্ধতি হতে পারে না। তাই মূল্যায়ন পদ্ধতির পরিবর্তন জরুরি’।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সোমবার এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, আমরা অতীতের শিল্প বিপ্লবগুলো থেকে উল্লেখযোগ্য সুবিধা নিতে পারিনি। তাই চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে আমরা সফল অংশীদার হতে চাই। পাশাপাশি ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড-এর যথাযথ সুফল আমরা নিতে পারিনি। তাই আগামী ১০ বছরে আমাদের ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ডের সুফল নিতে হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ট এবং চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সফল অংশীদার হতে হলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। তাই আমাদের শিক্ষাব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন জরুরি। এ লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার।